Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ম্যাজিক প্রদীপ বানিয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন ত্রিপুরার মৃৎশিল্পী, বিশেষত্ব কী?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

দীপাবলি মানেই আলোর রোশনাই, আর এই উৎসবে অত্যাধুনিক ম্যাজিক প্রদীপ নিয়ে হাজির ত্রিপুরার মৃৎশিল্পী। এমন প্রদীপ বাজারে একেবারেই বিরল। দেখতে অত্যন্ত সুন্দর এবং সারা রাতের জন্য নিশ্চিন্তে এই প্রদীপ জ্বালিয়ে রাখতে পারবেন। অনেকেই আছেন বর্তমানে ইলেকট্রিক টুনি আলোর থেকে বেশি পছন্দ করেন মাটির প্রদীপ। বিশেষ করে তাদের জন্য আলোর উৎসবে এই বিশেষ প্রদীপটি একটি উপহার স্বরূপ বলে মনে করা যেতে পারে।ত্রিপুরা রাজ্যের নন্দনগর পাল পাড়া এলাকার বাসিন্দা শংকর রুদ্রপাল এখন বড্ড ব্যস্ত মাটির প্রদীপ বানাতে। তার বাড়ির উঠোনে শুকাচ্ছে রাশিকৃত সুন্দর সুন্দর মাটির প্রদীপ।

শিল্পীর বাড়ি থেকে কিনতে চাইলে মাত্র ২ টাকার পরিবর্তে খুব সুন্দর মাটির প্রদীপ পেয়ে যাবেন। শংকর রুদ্র পাল নিজের হাতেই তৈরি করেছেন অত্যাধুনিক এক ম্যাজিক প্রদীপ। এই রাজ্যে প্রথম তিনি এই ধরনের প্রদীপ তৈরি করলেন। এই ধরনের প্রদীপ কলকাতার বাজারেও দেখা যায় কিনা সন্দেহ রয়েছে।ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের একস্থানে আপেল কুল বাগান দেখতে গিয়েছিলেন। এই খবরটি শংকর রুদ্র পালের অত্যন্ত ভালো লাগে। নিজের হাতে তৈরি এই ম্যাজিক প্রদীপটিকে মুখ্যমন্ত্রীকে দেখাতে চান তিনি।

বিশেষভাবে এই প্রদীপটি উৎসর্গ করতে চান ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী এবং রাজ্যবাসীর কাছে। প্রদীপটি দুটো ভাগে বিভক্ত। উপরের অংশটি গোলাকার ভাঁড়ের মত এবং নিচের দন্ডাকার অংশের একটু উপরে রয়েছে প্রদীপ। ভাঁড়ের নলের ছিদ্র দিয়ে তেল এসে পড়বে প্রদীপে। এই ম্যাজিক প্রদীপটি বানানোর ক্ষেত্রে তিনি বুদ্ধি পেয়েছেন ইউটিউব থেকে। সেখানে ছত্রিশগড়ের অশোককুমার নামক এক ব্যক্তির এই ধরনের প্রদীপ বানিয়েছিলেন বলে তিনি জানান। সামনেই আলোর উৎসব, তাই ত্রিপুরার এই মৃৎশিল্পীর ব্যস্ততা এখন তুঙ্গে। শংকর রুদ্রপালের হাতে হাতে সাহায্য করছেন তার স্ত্রী।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ