Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বিমানে সহযাত্রী অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে কি করেছিলেন মহম্মদ কাইফ? জানুন, সেই মজাদার ঘটনার কথা

।। প্রথম কলকাতা ।।

অতি সম্প্রতিই বীরেন্দ্র সেওয়াগের সঙ্গে ছোটপর্দার জনপ্রিয় কমেডি শো কপিল শর্মা শো’য়ের অতিথি হয়েছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার মহম্মদ কাইফ। নিজের ক্রিকেটজীবনের মজাদার ঘটনার কথা দর্শকদের সঙ্গে ভাগ করে নেন এই দুই তারকা। সম্প্রতি কমেডিয়ান কপিল শর্মা সেই শোয়ে সম্প্রচারিত না হওয়া কিছু ফুটেজ ট্যুইটারে পোস্ট করেছেন। যার মধ্যে কাইফের একটি অভিজ্ঞতার কথা নজর কেড়েছে নেটিজেনদের।

অমিতাভ বচ্চন ও কাইফের প্রশ্ন ঝড়

এলাহাবাদ ও অমিতাভ বচ্চনের প্রতি অনুরাগ নিয়ে কথা বলছিলেন মহম্মদ কাইফ। তিনি বলেন – ” তোমরা যদি কখনো উত্তর প্রদেশ আসো তাহলে দেখবে চায়ের দোকান, পানের দোকান, হোস্টেল, কলেজ সব জায়গাতেই অমিতাভ বচ্চনের মতো পোষাক পরে আছে সকলে। স্বাভাবিক ভাবেই ছোট থেকে মনে হতো অমিতাভ আমাদের ঘরের ছেলে। ” তবে একটি বিমানযাত্রায় আকস্মিক ভাবে অ্যাংরি ইয়ংম্যানের সঙ্গে দেখা হয়েছিল কাইফের। কি করেছিলেন এই তারকা? নিজের ফাঁস করেছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার। তিনি জানান – ” আমাকে চিনতে পেরে স্বাভাবিক ভাবেই অভিবাদন জানান অমিতাভজি। আমি এতোটাই উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলাম যে একের পর এক প্রশ্ন করে যেতে থাকি। জানাই যে তার জনপ্রিয় সিনেমা শাহেনশাহ অনেক বার দেখেছি। অমিতজি আমার প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছিলেন তবে তিনি চাইছিলেন আমি যেন একটু ধৈর্য ধরি। কিন্তু আমি একের পর এক প্রশ্ন করেই গিয়েছি। ” নিজের এই অভিজ্ঞতার কথা ভাগ করে নেওয়ার পর কপিল শর্মা শোয়ের মঞ্চ থেকেই কাইফ বলেন – ” অমিতজি, আপনি যদি এই শো দেখেন, তাহলে আমাকে আপনার মূল্যবান সময় ও উত্তরগুলি দেওয়ার জন্যে ধন্যবাদ। “

পাকিস্তানের মাটিতেই শোয়েব আখতারকে হেনস্থা

কপিল শর্মা শো’য়ে নিজের ক্রিকেটজীবনের নানান অভিজ্ঞতার কথা ভাগ করে নিয়েছেন কাইফ। পাকিস্তানের মাটিতেই শোয়েব আখতারকে হেনস্থা করবার মজাদার ঘটনার কথা বলেছেন এই প্রাক্তন ক্রিকেটার। কাইফ বলেন – ” পাকিস্তানের মাটিতেই শোয়েবকে হেনস্থা করতে চেয়েছিলাম। ও নামী বোলার ছিল। বিশাল লম্বা রান আপ। সেওয়াগ ওকে অনেক ছয় মারলেও আমি সেভাবে খেলবার সুযোগ পাইনি। তবে একটা ম্যাচে শোয়েব রান আপ নিয়ে এগিয়ে আসার সময় আমিও ক্রিজ ছেড়ে এগিয়ে যাই। আমি জানতাম এরপর ও বল করবে না, দাঁড়িয়ে যাবে। শোয়েব সেটাই করে। বলটা করেনি। এটাই আমার উদ্দেশ্য ছিল। “