Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

১৪ প্রদীপ জ্বালাতেই হবে, ভূত চতুর্দশীর দিন আপনি নিয়ম মানছেন তো ?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

কালী পুজো মানেই অমাবস্যা আর ঠিক এই তিথির সাথেই ভূতচতুর্দশীর দিনটিকে ঘিরে রয়েছে নানান প্রচলিত বিশ্বাস। অনেকে এই দিন রাত্রে বাইরে বেরোতে পর্যন্ত ভয় পান। আবছা কুয়াশা আর নিকষ কালো অন্ধকারে যে গা ছমছমে পরিবেশ সৃষ্টি হয় , তা দূর করতে অনেকে বাড়িতে ১৪ প্রদীপ জ্বালান। কিন্তু ভূত চতুর্দশীর দিন এই বিশেষ রীতি পালনের পিছনে কিছু মাহাত্ম্যপূর্ণ কারণ রয়েছে।

• ভূতচতুর্দশীকে ঘিরে নানান রীতি

কালীপুজোর দিন চলে আতশবাজির জলসা, আর ভূত চতুর্দশী দিন ১৪ প্রদীপ কীসের ইঙ্গিত বহন করে ? এই ভূত চতুর্দশীর দিনটিকে অনেকে আবার নরক চতুর্দশী বলে মনে করেন। এই দিনে চোদ্দ পুরুষকে উৎসর্গ করা হয় চোদ্দটি প্রদীপ জ্বালানো এবং চোদ্দ শাক খাওয়ার রীতি।

গীতা অনুযায়ী, মানব শরীর মৃত্যুর পর পঞ্চভূতে বিলীন হয়ে যায়। এই পঞ্চভূত বলতে বোঝায় একত্রে মাটির জল, হাওয়া, অগ্নি এবং আকাশকে। মৃত্যুর পর নাকি পূর্বপুরুষদের শরীর এই পঞ্চভূতে বিলীন হয়। ভূত চতুর্দশীর রাতেই বিদেহী আত্মা এবং স্বর্গত ব্যক্তিরা মর্ত্যে নেমে আসেন।

• রাজা বলির অনুচরদের পথ দেখানো

পুরাণ মতে, ভূত চতুর্দশীর রাতে শিব ভক্ত রাজা বলি এবং তাঁর অনুচররা মর্ত্যে ঘুরে বেড়ান। তারা প্রত্যেক ভক্তদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিজেরাই নাকি পুজো গ্রহণ করেন। কিন্তু অমাবস্যার ঘুটঘুটে অন্ধকারে যদি রাজা বলির অনুচররা পথ ভুলে যান, সেই কারণে প্রত্যেক বাড়িতেই জ্বালানো হয় ১৪ প্রদীপ। এককথায় তাদেরকে পথ দেখানোর উদ্দেশ্যে এই রীতি।

• পিতৃপুরুষদের ফিরে যাওয়ার দিন

কথিত আছে, পিতৃপক্ষের সময় পিতৃপুরুষদের মর্ত্যে আগমন হয়। কিন্তু তখন তাঁরা ফিরে যান না। তাঁরা অপেক্ষা করেন ভূতচতুর্দশীর বিশেষ দিনটির জন্য। এই বিশেষ তিথিতেই তাঁরা ফিরে যান তাঁদের জগতে। তাই অমাবস্যার অন্ধকারে তাঁদের পথ দেখাতে ১৪ প্রদীপ জ্বালানোর আয়োজন করা হয়। আবার অনেকে মনে করেন, এই দিন রাত্রে পূর্বপুরুষরা স্বর্গ থেকে মর্ত্যে নেমে আসেন।

• মর্ত্যে ভূতেদের বিচরণ

এই ভূত চতুর্দশীর সাথে মিল রয়েছে হ্যালোউইনের । এক্ষেত্রেও বেশিরভাগ সময় বিদেশের বিভিন্ন স্থানে বাড়ির চারদিকে টাঙানো হয় সুন্দর সুন্দর লন্ঠন। বিচিত্র লন্ঠনগুলি বেশিরভাগ সময় তৈরি হয় বড় বড় কুমড়ো কেটে। ভূত চতুর্দশীর সাথে এই দিনটির মিল খুঁজে পান অনেকেই। কারণ কথিত আছে রাজা বলির অনুচররা নাকি এক একজন ভূত। এই বিশ্বাসেই ভূত চতুর্দশীর রাত আরো বেশি রহস্যজনক হয়ে ওঠে সাধারণ মানুষের কাছে।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ