Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘আরিয়ান আমাকে অনুরোধ করে বাবা-মার সঙ্গে ফোনে কথা বলাতে’, মন্তব্য গোসাভির

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

গত কয়েক দিন ধরে নিখোঁজ ছিলেন বেসরকারি গোয়েন্দা বলে পরিচিত কেপি গোসাভি। এদিকে তাঁর ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষী ও আরিয়ান মাদক মামলার অন্যতম সাক্ষী প্রভাকর সেইলের হলফনামা নিয়ে সোরগোল পড়ে গিয়েছে দেশ জুড়ে। হলফনামায় সেইল উল্লেখ করেছেন যে, এই মামলায় টাকা লেনদেন হয়েছে ও যার সঙ্গে যুক্ত এনসিবি ডিরেক্টর সীমর ওয়াংখেড়েও। এর মধ্যেই মুম্বই ক্রুজ ড্রাগস মামলায় নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) অন্যতম স্বাক্ষী কেপি গোসাভি দাবি করলেন, শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান তাঁকে তাঁর (আরিয়ান) বাবা-মাকে ফোন করার অনুরোধ করেছিলেন।

এনসিবি একটি বিলাসবহুল ক্রুজে অভিযান চালানোর পর একটি ছবি ভাইরাল হয়। যেখানে কেপি গোসাভিকে দেখা যায় আরিয়ান খানের সঙ্গে সেলফি তুলতে। এই অভিযানের পর এসআরকে-র পুত্র এবং আরও বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। সোমবার ইন্ডিয়া টুডের সঙ্গে ফোনে কথা বলার সময় কে পি গোসাভি বলেন, ‍‘আরিয়ান খান আমাকে তাঁর বাবা-মা ও ম্যানেজারের সঙ্গে কথা বলার জন্য বলেছিলেন। কারণ সে সময় তাঁর নিজের ফোন ছিল না। আমার সঙ্গে ফোন থাকায় আরিয়ান শুধুমাত্র তাঁর বাবা-মা এবং ম্যানেজারকে ফোন করার জন্য অনুরোধ করেছিলেন।’

গোসাভি দাবি করেছেন, তিনি ৬ অক্টোবর পর্যন্ত মুম্বইয়ে ছিলেন। পাশাপাশি তিনি ইন্ডিয়া টুডেকে জানান, ‍‘এই ঘটনা নিয়ে অনেক হুমকি কল আসতে শুরু করার পর আমি বাধ্য হই ফোন বন্ধ করতে।’ সেই সঙ্গে তিনি দাবি করেন, এনসিবি জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়েকেও তিনি চিনতেন না এবং তাঁকে শুধুমাত্র টিভিতে দেখেছেন। এ প্রসঙ্গে গোসাভি ইন্ডিয়া টুডেকে বলেন, ‍‘আমি এনসিবির আগের কোনও পদক্ষেপ বা অভিযানের অংশ ছিলাম না।’ মুম্বই মাদক মামলার বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে অন্যতম সাক্ষী গোসাভি বলেন, ‍‘বিষয়বস্তু পড়ে আমি পঞ্চনামায় স্বাক্ষর করেছি।’

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ