Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ভারত-পাক ম্যাচের পর দুবাইয়ের ‘ঘাস-মাটি’ খেতে চেয়ে ফের নেটদুনিয়ায় ভাইরাল মোমিন সাকিব,দেখুন ভিডিও

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

মোমিন সাকিবের নাম বললেই তাকে চিনতে পারাটা মুশকিল। কিন্তু ভারত, পাকিস্তানের ক্রিকেট অনুরাগীদের কাছে অত্যন্ত পরিচিত তার ভাইরাল হয়ে যাওয়া ভিডিও। ২০১৯ বিশ্বকাপের পর ‘মারো মুঝে মারো’ সাক্ষাৎকারের দৌলতে বিখ্যাত হয়ে যান এই পাকিস্তানী ক্রিকেট ফ্যান। গতকাল ২৯ বছরের লজ্জার ইতিহাসে ইতি টেনে ভারতের বিরুদ্ধে দাপুটে জয় পেয়েছে পাকিস্তান। বাবর আজমদের সুদিনেও ভাইরাল মোমিনের ভিডিও।

বিশ্বকাপে ভার‍ত পাকিস্তান

দীর্ঘ দুই বছর পর বাইশ গজে দেখা হয়েছিল দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর। আর ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ রাইভ্যালরি ভারত-পাক ম্যাচ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের হাইভোল্টেজ ম্যাচ ঘিরে উত্তেজনার পারদ চড়েছিল ওয়াঘার দুই পারেই। দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরু হওয়ার অনেক আগে থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় মিম যুদ্ধে মেতে ওঠেন প্রতিবেশী দেশদুটির নেটিজেনরা। আর উঠে আসে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের অপরাজেয় রেকর্ডের কথা। গতকালের ম্যাচটির আগে কোন বিশ্বকাপেই পাকিস্তানের কাছে হারের মুখ দেখেনি ভার‍তীয় দল।।টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ৫টি ম্যাচ ও ওয়ানডে বিশ্বকাপে ৭টি ম্যাচের প্রত্যেকটিতেই শেষ হাসি হেসেছে ভারত। গতকাল সন্ধ্যায় অবশ্য সেই রেকর্ডের ইতি টেনেছে পাকিস্তান। শাহিন-বাবরদের দুরন্ত পারফর্মেন্সের দৌলতে ১০ উইকেটে দাপুটে জয় পেয়েছে ভারতের প্রতিবেশী দেশটিই। স্বাভাবিক ভাবে বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম জয় পেয়ে পাকিস্থানী ক্রিকেট অনুরাগীদের আবেগ মাত্রা ছাড়া।

কে এই মোমিন সাকিব?

২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সময় ভাইরাল হয়েছিলেন এই পাকিস্তানী ক্রিকেট ফ্যান। ওই ম্যাচে ভারতের কাছে অবিশ্বাস্য হারের মুখ দেখেছিলেন সরফরাজ আহমেদরা। প্রথমে ব্যাট করে ৩৩৬ রান তোলে ভারত। রান তাড়া করতে শুরুটা খারাপ করেনি পাকিস্তানও। কিন্তু হার্দিক পান্ডিয়া ও কুলদীপ যাদবের দারুণ স্পেলে ম্যাচ হেরে যায় পাকিস্তান। এমন পটবদলে ভীষণ হতাশ হয়েছিলেন পাক ক্রিকেট ফ্যানেরা। ম্যাচের পর সাকিব মোমিনের দেওয়া সাক্ষাৎকার ভাইরাল হয় নেট দুনিয়ায়। ‘মারো মুঝে মারো’ বলে বিখ্যাত হয়ে যাওয়া সাকিবের অভিযোগের তির ছিল পাকিস্তানী ক্রিকেটারদের দিকেই। ম্যাচের আগের দিন বার্গার, পিজ্জা খেয়েই দিন কাটিয়েছেন সরফরাজরা, এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ করেছিলেন সাকিব। তার আক্ষেপের ভিডিও জনপ্রিয় হয়েছিল ওয়াঘার দুই পারেই।

দিন বদল

গতকাল পাকিস্তানের ঐতিহাসিক জয়ের দিনও দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে উপস্থিত ছিলেন সাকিব মোমিন। বাবরদের দাপুটে পারফর্মেন্সে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। ম্যাচ শেষে বলেন – ” দিন বদলে গিয়েছে। এই পাকিস্তান দলের মানসিকতা, দক্ষতার প্রশংসা করতেই হবে। ” দুবাইয়ের হাইভোল্টেজ ম্যাচ দেখতে যাওয়া বলিউড তারকা অক্ষয় কুমারের সঙ্গেও দেখা করেছেন এই পাক ফ্যান। পাকিস্তানের জয়ে আত্মহারা মোমিন দুবাই স্টেডিয়ামের ঘাস – মাটি অবধি খেতে চান।