Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

অমিত শাহর ‘মিশন কাশ্মীর’, এক নজরে দেখে নিন আজকের সফর সূচি

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

৩৭০ ধারা বিলোপের পর আজই প্রথম কাশ্মীরে পা রাখছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। উপত্যকায় তিনি ৩ দিন থাকবেন বলে জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর, অমিত শাহর এই সফরে জম্মু এবং কাশ্মীরের উন্নয়ন নিয়ে কথা হবে। তবে এই মুহূর্তে অনেকটাই উত্তপ্ত কেন্দ্র শাসিত রাজ্যটি। বিশেষত জঙ্গি গোষ্ঠীর অনুপ্রবেশ, ড্রোনের মাধ্যমে অস্ত্র ও গোলা-বারুদ সরবরাহ এবং সেখানকার অমুসলিম নাগরিকদের হত্যার প্রবণতা বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বেগ বেড়েছে। এই পরিস্থিতিতে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই সফর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। অমিত শাহর এই সফর ঘিরে জোর আলোচনা চলছে যে, পাকিস্তানকে বার্তা দিতেই নাকি কাশ্মীর যাচ্ছেন তিনি। গত কয়েকদিনের ঘটনা বলছে, সেখানে বেশ কয়েকটি আতঙ্কবাদী হামলার ঘটনা ঘটেছে। আর বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই আক্রান্ত হয়েছেন হিন্দুরা। আতঙ্কবাদীদের হামলার পর সখানকার বাসিন্দাদের মনে ভয় তৈরি হয়েছে।

এর পাশাপাশি দেখা যাচ্ছে, পরিযায়ী শ্রমিক এবং হিন্দুদের বড়সড় একটা ভাগ উপত্যকা ত্যাগ করছেন। ছুটির মরসুমে এবার পর্যটকরাও কাশ্মীর থেকে আতঙ্কে মুখ ঘুড়িয়েছেন। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পর্যটন শিল্পও। এরই মাঝে অমিত শাহর এই সফর সেখানকার হিন্দুদের মধ্যে ভরসা দিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই সফরের মাধ্যমে বার্তাও দেওয়ার চেষ্টা করা হবে যে, পাকিস্তান যতই হামলা করুক, ভারত সব সময় দেশের নাগরিকদের পাশে রয়েছে। আতঙ্কবাদীদের হামলায় নিহতদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি বলে সূত্রের খবর।সেই সঙ্গে জানা গিয়েছে, কাশ্মীরি পণ্ডিত মাখনলাল বিন্দরু, সুপিন্দর কউর এবং ৭ অক্টোবর শহিদ হওয়া ২৫ বছরের এসআই আহমেদ মীরের পরিজনদের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি। অমিত শাহ চেয়েছিলেন সরাসরি তাঁদের বাড়িতে হাজির হতে। বাড়ি বাড়ি গিয়ে মৃতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন তিনি। তবে নিরাপত্তাজনিত কারণে তা সম্ভব নয় বলে জানানেনা হয়েছে।

এদিকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে বাড়ছে পাকিস্তানের বিরোধিতা। এমন পরিস্থিতির মধ্যে অমিত শাহ কাশ্মীর সফরে যাচ্ছেন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এবং সেনাপ্রধান কমর জাভেদের মধ্যে চাপানউতোর চলছে বলে খবর। আর এরই মাঝে অমিত শাহর সফর আতঙ্কবাদের ওপর বড়সড় হুমকি মনে করা হচ্ছে। আজ তিনি শ্রীনগর বিমানবন্দরে নামার পর শারজা-শ্রীনগরের মধ্যে বিমান পরিষেবা চালু করবেন। এরপর তিনি সেখান থেকে সোজা রাজভবন যাবেন। সেখানে তিনি নিরাপত্তা এবং গোয়েন্দা কর্তাদের সঙ্গে এক অত্যন্ত জরুরি বৈঠকে বসবেন। ওই বৈঠকে থাকবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভল্লা, র-এর প্রধান সামন্তকুমার গোয়েল, জম্মু এবং কাশ্মীরের পুলিশের ডিজি দিলবাগ সিং, আইবি-র প্রধান অরবিন্দ কুমার, সিআরপিএফ এবং এনআইএ-র ডিজিপি এম এ গণপতি, বিএসএপ-এর ডিজিপি পঙ্কজ সিং। জম্মু এবং কাশ্মীর- দুই জায়গার আইজিরাও বৈঠকে থাকবেন বলে জানা গিয়েছে।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ

Categories