Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বিহারে আরজেডি সঙ্গ ত্যাগ কংগ্রেসের, সাহস যোগাচ্ছেন পাপ্পু!

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

আসন্ন ৩০ অক্টোবর বিহারের তারাপুর ও কুশেশ্বর কেন্দ্রে উপনির্বাচন। তার আগেই অবশ্য কংগ্রেস ও লালু প্রসাদ যাদবের দল আরজেডি’র মধ্যে জোট ভেঙে যাওয়ার জোগাড়। ঝামেলা তখন থেকেই শুরু হয় যখন দু’টি কেন্দ্রেই পৃথক প্রার্থী দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব। আর বিষয়টিকে একাবারেই ভালো ভাবে নেয়নি বিহার প্রদেশ কংগ্রেস।২০২০ সালের বিধানসভায় কংগ্রেস ও আরজেডি জোট করে লড়াই করেছিল। সেই হিসেবে তারাপুরে প্রার্থী দিয়েছিল আরজেডি। যদিও সেখানে তাঁরা জয়লাভ করতে না পারলেও প্রায় ৩৩ শতাংশ ভোট পেয়েছিল। অন্যদিকে, কুশেশ্বরে কংগ্রেস প্রার্থী দেয় এবং তাঁরাও প্রায় ৩৫ শতাংশ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানাধিকার করে।

কিন্তু আসন্ন উপনির্বাচনে এই দুই কেন্দ্রে এককভাবে লড়াই করবে কংগ্রেস ও আরজেডি। তারাপুর কেন্দ্রে আরজেডি অরুণ কুমার শাহকে প্রার্থী করেছে। অন্যদিকে, কংগ্রেসের প্রার্থী রাজেশ কুমার মিশ্র। কুশেশ্বর কেন্দ্রে কংগ্রেস এবং আরজেডি প্রার্থী যথাক্রমে অতিরেক কুমার এবং গণেশ ভারতী। অর্থাৎ উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিহারে আরজেডি ও কংগ্রেসের জোট কার্যত ভেঙে গেল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। এরইমধ্যে আবার প্রাক্তন সাংসদ তথা জন অধিকারী দলের সম্পাদক রাজেশ রঞ্জন ওরফে পাপ্পু যাদব ঘোষণা করেছেন আসন্ন বিহার উপনির্বাচনে তাঁর দল সম্পূর্ণভাবে কংগ্রেসকে সমর্থন করবে। একটি ট্যুইট করে পাপ্পু লিখেছেন, “বিহার বিধানসভা উপনির্বাচনের দুটি আসনেই আমার দল কংগ্রেসকে সমর্থন করবে। তাঁদের প্রার্থীদের জয় নিশ্চিত করতে আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করব। এর ফলে বিহার অক্ষম বিরোধী দল এবং ক্ষমতাসীন শাসক দলের হাত থেকে রেহাই পাবে। কংগ্রেসেই বিহারের যোগ্য বিকল্প।“

এমনকি কংগ্রেস নেতা ভক্ত চরণ সিংহের সাথে একটি বৈঠকের পর পাপ্পু যাদব জানিয়েছেন তিনি কংগ্রেসের প্রচারেও অংশ নেবেন। তবে, গত বছর বিধানসভায় তারাপুর ও কুশেশ্বর উভয় কেন্দ্রেই জনতা দল জয়লাভ করেছিল। কিন্তু তাঁদের দুই জয়ী বিধায়কের মৃত্যু হওয়ায় ফের একবার এই দুই কেন্দ্রে উপনির্বাচন হতে চলেছে। প্রসঙ্গত, বিহারের ছেলে কানহাইয়া কুমার শোরগোল ফেলে সিপিআই থেকে কংগ্রেসে যোগদানের পর থেকেই বিহারে কিছুটা আত্মবিশ্বাসী দেখাচ্ছে কংগ্রেসকে। তবে, বিহারের মহাগাঁটবন্ধন জোটের ভবিষ্যত যে কী হতে চলেছে তা নিয়েই চলছে জল্পনা। আর সব সমীকরণেই লাভ কুড়োচ্ছে শাসক দল জনতা পার্টি।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ