Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নজির গড়েই চলেছেন সাকিব, আফ্রিদির রেকর্ড স্পর্শ করলেন এই তারকা অলরাউন্ডার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ রাউন্ড ১ গ্রুপ বি’তে নিজেদের শেষ ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনিকে ৮৪ রানের বড় ব্যবধানে উড়িয়ে সুপার টুয়েলভের যোগ্যতাঅর্জন করেছে বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহদের জয়ের পিছনে রয়েছে সাকিবের অলরাউন্ড পারফর্মেন্স। আসাদ ভালাদের বিরুদ্ধে চার উইকেট নিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের কিংবদন্তি অলরাউন্ডার শাহিদ আফ্রিদির সমান সংখ্যক (৩৯টি) শিকারের নজির গড়েছেন সাকিব।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সাকিব মাত্র ২৮টি ম্যাচ খেলে ৩৯টি উইকেট নিজের ঝুলিতে পুরেছেন। শুধু উইকেট দখলই নয়, নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে প্রতিপক্ষের রানের গতি রুদ্ধ করতেও জুড়ি নেই বাংলাদেশী অলরাউন্ডারের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে সাকিবের ইকোনমি ৬.৩৮। পাকিস্তানের প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার শাহিদ আফ্রিদি একই সংখ্যক শিকার করেছিলেন ৩৪টি ম্যাচ খেলে। বাংলাদেশ সুপার টুয়েলভের যোগ্যতা অর্জন করায় কমপক্ষে আরো পাঁচটি ম্যাচ খেলবে। সাকিব যে এই বিশ্বকাপেই আফ্রিদির রেকর্ড ভেঙ্গে দেবেন সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। বর্তমানে সক্রিয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের মধ্যে অন্য কোন বোলারেরই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ৩০টি উইকেট নেই। সাকিবের সবচেয়ে কাছে রয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ডোয়েন ব্র‍্যাভো। টি-টোয়েন্টি মহারণের মঞ্চে ক্যারিবিয়ান মিডিয়াম পেসারের সংগ্রহ ২৫টি উইকেট।

গতকাল পাপুয়া নিউগিনির বিরুদ্ধে ব্যাট হাতেও দারুণ খেলেছেন সাকিব। শুরুতেই ওপেনার মহম্মদ নাঈমের উইকেট খোয়ানোর পর তিন নম্বরে ব্যাট কর‍তে এসে ২৮ বলে ৪৬ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেছেন বাংলাদেশী অলরাউন্ডার। তার ও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর ২৮ বলে ৫০ রানের দৌলতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৮১ রানের পাহাড় তৈরি করে বাংলাদেশ। পাওয়ার প্লে’তে নিজের প্রথম ওভারেই চার্লস আমিনি, সাইমন আটাইয়ের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে পাপুয়া নিউগিনিকে বড় ধাক্কা দেন সাকিব। এই ধাক্কা সামলাতে পারেননি আসাদ ভালারা। এরপর সেসে বাউ, হিরি হিরিকেও প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখিয়েছেন সাকিব। ৪ ওভার বল করে ৯ রানের বিনিময়ে বাংলাদেশী স্পিনারের শিকার সংখ্যা ৪। ১৯.৩ ওভারের মাত্র ৯৭ রানেই শেষ হয়ে যায় পাপুয়া নিউগিনির ইনিংস।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের কাছে অবাক হারের পর দারুণ প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন সাকিবরা। দ্বিতীয় ম্যাচে ওমান ও শেষ ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে গ্রুপ বি’তে দ্বিতীয় স্থান পেয়ে সুপার টুয়েলভের যোগ্যতাঅর্জন করেছে বাংলাদেশ। তবে সুপার টুয়েলভে সাকিবদের সামনে কঠিন ঠাঁই। ইংল্যান্ড, অষ্ট্রেলিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো শক্তিশালী দলের পাশাপাশি গ্রুপ এ’র প্র‍থম স্থানাধিকারী দলের সঙ্গে খেলতে হবে বাংলাদেশকে।