Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

কালকেউটে থেকে সাবধান ! এর মারাত্মক বিষে কী হতে পারে জানেন ?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

গ্রাম বাংলার মাছ ধরার জালে কিংবা জমির আশেপাশে প্রায়ই দেখতে পাওয়া যায় বিষধর কালকেউটে সাপকে। স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্ক গ্রাস করে মানুষের মনে। বিষাক্ত হওয়ার কারণে অনেক সময় বিনা দোষে বেঘোরে প্রাণ যায় এদের। কিন্তু কাল কেউটে যদি আপনাকে অসতর্কতা বশত ছোবল দেয় আপনি টের পাবেন না। বাংলায় বিষাক্ত সাপ গুলির মধ্যে স্থান করে নিয়েছে কাল কেউটে। দ্রুত কিডনি এবং মস্তিষ্ক অবিকল করতে এই সাপের বিষ বেশিক্ষণ সময় নেয় না। তড়িঘড়ি চিকিৎসা শুরু না হলে ব্যক্তির মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে।

কালকেউটে বর্তমানে একটি বিরল প্রজাতির সাপ, চাষের জমির আশেপাশে কিংবা বন জঙ্গল ছাড়া এদেরকে প্রায় দেখা যায় না। এরা অত্যন্ত শান্ত প্রকৃতির হয়। আঘাত না পেলে সহজে কাউকে দংশন করে না। সাধারণত ছোট ছোট সাপ, ব্যাঙ, ইঁদুর, টিকটিকি প্রভৃতি এদের খাদ্য। খাবারের খোঁজে মাঝে মাঝে গ্রামাঞ্চলে ঢুকে পড়ে।

কালকেউটের বসবাস কোথায় ?

পুরনো ভাঙাচোরা বাড়ি, খোলা মাঠ, ইঁদুরের গর্ত, ইটের স্তুপ, চাষ করার জমি নিচে এরা সাধারণত লুকিয়ে থাকে। কালকেউটে কামড়ালে মাঝে মাঝে বোঝা যায় না। আবার অনেক সময় সামান্য ব্যথা কিংবা চুলকানি অনুভব হয়। এই সাপের বিষ মানুষের শরীরে প্রতিক্রিয়া তৈরি করতে বেশ কয়েক ঘণ্টা সময় নেয়। তাই যদি রাত্রে কামড়ায় তাহলে সকালের মধ্যেই নানান উপসর্গ দেখা দিতে থাকে।

• দংশনের পর উপসর্গ

খাবার সময় রোগী ঢোক গিলতে ব্যথা পায় কিংবা বমি হয়। হাত পা ধীরে ধীরে অবশ হয়ে আসতে থাকে। পেটে এবং মাংসপেশিতে ব্যথা অনুভব হয়। অনেকের আবার সারা শরীর জুড়ে কাঁপুনি শুরু হয়। দ্রুত চিকিৎসা শুরু না হলে মস্তিষ্ক এবং মাংসপেশি ধীরে ধীরে অসাড় হয়ে যাবে এবং কিডনি সম্পূর্ণরূপে বিকল হয়ে পড়বে।

সঠিক সময়ে চিকিৎসা শুরু না হলে ব্যক্তির মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে। এরকম অনেকবার হয়েছে যে কালকেউটের কামড়ে অনেকে সুস্থ হয়ে যাওয়ার পরেও দেখা দিয়েছে নানান শারীরিক জটিল সমস্যা।

দংশন করলে কী করতে হবে ?

কালকেউটে কামড়ালে সেই স্থানে একদম কাটাছেঁড়া করা যাবে না। অনেকের ভ্রান্ত ধারণা অনুযায়ী দংশনের স্থান ব্লেড দিয়ে চিরে দেন। এসব না করে তড়িঘড়ি চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যেতে হবে। চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার সময় রোগীকে কাত করে নিয়ে যাওয়া উচিত। কারণ বিষক্রিয়ার ফলে বমি হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ