Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মারাত্মক নাকডাকার অভ্যাস? প্রতিকার না করলে হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

সারাদিনের হারভাঙ্গা ক্লান্তির পর ঘুমাতে যাওয়া যেন এক স্বর্গসুখ। অথচ নিজেরও ঠিক মতো ঘুম হলোনা আর পাশে শুয়ে থাকা ব্যক্তিও চোটে লাল। কারণ আপনার মারাত্মক নাক ডাকার বিশ্রী শব্দ। তবে এ সমস্যা নতুন নয়। গবেষণা থেকে দেখা গেছে বিশ্বের প্রায় ৪০ শতাংশ পুরুষ ও ২০ শতাংশ মহিলা ঘুমের মধ্যে রয়েছে নাক ডাকার সমস্যা। যার থেকে ঘুমের মধ্যেই হতে পারে হার্ট অ্যাটাকের সমস্যাও। তাই সাবধান হোন এখনই। জানুন নাক ডাকার কারণ ও তার প্রতিকারের নানান উপায়।

নাক ডাকার কারণ-

চিকিৎসকদের মতে নাক ডাকার সমস্যা বিভিন্ন কারণে হতে পারে।

১. শরীরের অতিরিক্ত ফ্যাট টিস্যু জমলে কিংবা পেশি দুর্বল হলে নাক ডাকার সমস্যা তৈরি হতে পারে।

২. কণ্ঠনালী সরু বা ক্ষীণ হলে তাঁদের ক্ষেত্রে নাক ডাকার সমস্যা বাড়ে। তবে এটি বয়স বাড়ার কারণে হতে পারে আবার জন্মগত ভাবে কণ্ঠনালী শুরু হলেও হতে পারে।

৩. অনেকেই শোয়ার সময় চিত হয়ে অর্থাৎ লম্বা ভাবে ঘুমান। এর ফলে গলার পেশি আলগা হয়ে যায় ও নিঃস্বাস বেরোতে বাধা পায় যা থেকে তৈরি হয় নাক ডাকার সমস্যা।

৪. এছাড়াও অতিরিক্ত কাজের চাপ কিংবা নিয়মিত মদ্যপান, ধূমপান বা নির্দিষ্ট কিছু ওষুধ খেলেও গলার পেশি আলগা হয়ে যায় যার থেকে সৃষ্টি হয় নাক ডাকা।

এবার জানুন নাক ডাকার এই ভয়ঙ্কর বিপদ থেকে পরিত্রাণের উপায়-

১. ঘুমানোর ধরণ বদলান। চিত হয়ে শোয়ার পরিবর্তে ডান বা বা দিকে কাথ হয়ে ঘুমানোর চেষ্টা করুন। এতে করে কমবে নাক ডাকার সমস্যা।

২. দেহের বাড়তি ওজন কমাতে পারলেও মুক্তি পাবেন এই সমস্যা থেকে।

৩. নাক পরিষ্কার রাখা অত্যন্ত প্রয়োজন। অনেক সময় ঠান্ডা লেগে সর্দি জমে নাক বন্ধ হয়ে যায় যার থেকে নিঃশ্বাসে বাধা সৃষ্টি হলে নাক ডাকার শব্দ তৈরি হয়।

৪. এসবের পাশাপাশি দিনে ২-৩ বার নিয়মিত চা খান। এতে করে চা থেকে ওঠা বাষ্প ন্যাসাল প্যাসেজকে প্রশমিত করে যা শ্লেষ্মা কমায় মিউকাসকে তরল রাখে। যার ফলে নাক ডাকার সমস্যা কমে।

৫. রাতে ঘুমানোর আগে চায়ের সাথে মধু মিশিয়ে খান। মধু কণ্ঠনালীকে মসৃণ করে ও স্বরনালীকে পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। যা নাক ডাকার সমস্যা অনেকাংশে কমায়।

৬. খাওয়ার সাথে নিয়মিত খান কাঁচা পেঁয়াজ। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি পদার্থ যা ন্যাসাল প্যাসেজকে পরিষ্কার রেখে বেশী পরিমাণে হাওয়া চলাচলে সাহায্য করে। যা নাক ডাকার সমস্যা কমায়।

৭. এছাড়াও ডায়েটে রাখুন মাছ, তবে রেড মিট নয়। পাশাপাশি রাখুন হলুদ।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ