Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Arvind Kejriwal : পাঞ্জাবে ‘স্বাস্থ্য গ্যারান্টি’ কেজরিওয়ালের

1 min read

।।সৌম্য বাগচী।।

পাঞ্জাব বিধানসভা ভোটের আর খুব একটা সময় বাকি নেই। উত্তর ভারতের এই রাজ্যটির বর্তমান শাসক দল কংগ্রেস ঘরোয়া কোন্দলে বিপর্যস্ত। একের পর এক উত্থান-পতনের নাটক চলছে পাঞ্জাব কংগ্রেসে। এদিকে কেন্দ্রের কৃষি আইন নিয়ে ভেঙে গিয়েছে আকালি শিরোমনি-বিজেপি জোটও। বিজেপির বিরুদ্ধে কৃষিপ্রধান পাঞ্জাব এখন তেতে রয়েছে। তাই ঘোলা জলে মাছ ধরার কোনও সুযোগই হাতছাড়া করতে চাইছে না আম আদমি পার্টি (আপ)। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) বৃহস্পতিবার পাঞ্জাবে ছ’টি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, যাকে তিনি ‍‘স্বাস্থ্যের গ্যারান্টি’ হিসাবে উল্লেখ করেছেন।

আপ সুপ্রিমো বলেছেন, ‍‘যদি পরবর্তী বিধানসভা নির্বাচনের পরে রাজ্যে (পাঞ্জাব) আম আদমি পার্টি ক্ষমতায় আসে তাহলে স্বাস্থ্যের গ্যারান্টি দেবে সরকার।’ কেজরিওয়ালের দেওয়া প্রতিশ্রুতির মধ্যে রয়েছে, রাজ্য জুড়ে সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সুবিধা। আর সমস্ত সুবিধাগুলি হবে বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবার সমতুল্য। সেই সঙ্গে তিনি বলেছেন, দিল্লির মতো যদি পাঞ্জাবেরও তাঁর দল ক্ষমতায় আসে তবে সমস্ত ওষুধ, পরীক্ষা, চিকিত্সা এবং অপারেশন বিনামূল্যে হবে। এদিন অবশ্য কেজরিওয়াল পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা করেননি, তবে জানিয়েছেন, এই বিষয়ে যথা সময়ে ঘোষণা করা হবে। পাশাপাশি তিনি এও নিশ্চিত করেননি যে পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং (Amarinder Singh) আপ-এ যোগ দিচ্ছেন কিনা।

তবে ক্যাপ্টেনের যোগদান বিষয়টিকে ‍‘অনুমাণমূলক’ বলে জল্পনা উসকে দিয়েছেন তিনি। পাঞ্জাবের লুধিয়ানাতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে কেজরিওয়াল বলেন, ‍‘চণ্ডীগড়ের স্নাতকোত্তর ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ (পিজিআইএমইআর) বাদে, রাজ্যের অন্যান্য সমস্ত সরকারী স্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং প্রতিষ্ঠানগুলি করুণ অবস্থায় আছে। এর ফলে সাধারণ মানুষ বাধ্য হচ্ছেন বেসরকারি হাসপাতালে যেতে।’ সেই সঙ্গে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‍‘এই বেসরকারি হাসপাতালগুলি জনসাধারণকে লুট করছে। এদিকে সরকারের স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে কর্মী এবং পরিকাঠামোর মারাত্মক ঘাটতি রয়েছে।’


একনজরে দিল্লি মডেলের উপর ভিত্তি করে পাঞ্জাবের বাসিন্দাদের স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কিত ছয়টি গ্যারান্টি প্রকল্প:


১) পাঞ্জাবের প্রতিটি বাসিন্দা বিনামূল্যে উন্নতমানের চিকিৎসা পাবেন।
২) সমস্ত ওষুধ, ডায়াগনস্টিক টেস্ট, এবং সার্জিক্যাল অপারেশন রাজ্য জুড়ে সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে করা যাবে। এ প্রসঙ্গে কেজরিওয়াল বলেছেন, ‍‘আমরা নিশ্চিত করব যাতে সমস্ত ওষুধ পাওয়া যায় এবং হাসপাতালের প্রয়োজনী যন্ত্রগুলি যাতে কার্যকরী থাকে। এমনকি ১৫ লক্ষ টাকার ব্যয়বহুল অস্ত্রোপচারও বিনামূল্যে হবে।’
৩) পাঞ্জাবের প্রতিটি নাগরিক একটি স্বাস্থ্য কার্ড পাবেন। সেই কার্ডে ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য এবং প্রতিবেদন থাকবে।
৪) দিল্লির মহল্লা ক্লিনিকের আদলে গ্রামাঞ্চলের প্রতিটি কোণায় ‍‘পিন্ড ক্লিনিক’ এবং শহরে ‍‘ওয়ার্ড ক্লিনিক’ খোলা হবে। গোটা রাজ্য জুড়ে ১৬,০০০-এর মতো ক্লিনিক স্থাপন করা হবে।
৫) পাঞ্জাবের সমস্ত সরকারি হাসপাতালের পরিকাঠামো উন্নত করা হবে এবং সেগুলি সাধারণ মানুষের জন্য সহজলভ্য করা হবে। হাসপাতালগুলি সকল সুবিধা সহ সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত করা হবে।
৬) যে কেউ দুর্ঘটনার সম্মুখীন হলে তাঁকে দ্রুত নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হবে এবং তাঁর চিকিৎসার খরচ বহন করবে পাঞ্জাব সরকার, তা সরকারি বা বেসরকারি যেখানেই হোক না কেন।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ

Categories