Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ক্যাপ্টেন-শাহ বৈঠক! বিজেপির পথেই কি অমরিন্দর সিং?

1 min read


।।প্রথম কলকাতা।।

পাঞ্জাব কংগ্রেসের ঘরোয়া কোন্দল উত্তোরত্তর বেড়ই চলেছে। এদিকে রাজ্যটির বিধানসভা ভোটেরও আর দেরি নেই। তাই পাঞ্জাব নিয়ে তীব্র উদ্বেগ বাড়ছে জাতীয় কংগ্রেসের অন্দরে। মুখ খুলতে শুরু করে দিয়েছেন গান্ধি পরিবারের বিরোধী বলে পরিচিত জি-২৩-এর সদস্যরাও। সিধুর প্রতি ক্ষোভ জানিয়ে ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে আকস্মিক পদত্যাগের পর কংগ্রেস হাইকম্যান্ড তাঁর উত্তরসূরি হিসাবে বেছে নিয়েছিল চরণজিৎ সিং চান্নিকে। এই দলিত নেতাকে বেছে নেওয়ার কারণ হিসাবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মনোভাব, সুরজিৎ সিং রানধাওয়া বা নবজ্যোৎ সিং সিধুকে মুখ্যমন্ত্রী করলে পাঞ্জাব কংগ্রেসের ঘরোয়া বিবাদ আরও বাড়ত। তাই নতুন মুখ বেছে নেওয়া।

পাশাপাশি সিধুকে খুশি রাখতে তাঁর হাতেই রেখে দেওয়া হয় রাজ্য কংগ্রেসের দায়িত্ব। কিন্তু তাতে আর সুরাহা হল কই? মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে কুর্শিতে বসার পরই চান্নি তাঁর নতুন মন্ত্রীসভা ঘঠন করেন। এর ঠিক পরপরই একই দিনে রাজ্য কংগ্রেসের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ান সিধু। পার্টিকে ডুবিয়ে তাঁর এই আকস্মিক পদত্যাগের পরই কংগ্রেসকে চিন্তায় ফেলে বুধবার অমরিন্দর সিং দেখা করেন অমিত শাহের সঙ্গে। বুধবার প্রায় ৪৫ মিনিট ধরে দিল্লিতে পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং এবং অমিত শাহ বৈঠক করেন। তারপরই অমিত শাহের গাড়িতে করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করতে যান। কিন্তু, অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়বস্তু এখনও জানা যায়নি। যদিও অমরিন্দর সিংয়ের সহযোগীরা জানিয়েছেন, এটা ছিল কেবলমাত্র ‘সৌজন্য সাক্ষাৎ’।

কৃষক আন্দোলন নিয়ে এর আগে ৭৮ বছরের ক্যাপ্টেন বিজেপির বিরুদ্ধে বেশ কয়েকবার তোপ দাগলেও সূত্রের খবর, অমরিন্দর সিংয়ের মাধ্যমে পাঞ্জাবের আগামী নির্বাচনে লড়ার স্বপ্ন দেখছে বিজেপি। হাতিয়ার হিসাবে সংশোধিত কৃষি আইন বিরোধিতায় আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে অমরিন্দর সিংয়ের মাধ্যমে মধ্যস্থতা করিয়ে চমক দিতে চাইছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। যাতে কৃষক বিক্ষোভ থামিয়ে পাঞ্জাব দখল করা যায়। অমিত শাহ-মোদির সেই স্বপ্ন কতটা বাস্তবায়িত হবে তা সময়ই বলবে। কিন্তু, এখন অমরিন্দর সিংয়ের কাছে বিজেপিতে যোগ দেওয়া এবং কৃষি আইনের সমাধান খুঁজে বের করা ছাড়া আর কোনও বিকল্প নেই। অন্যদিকে, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং ও তাঁর উপদেষ্টাদের নিরাপত্তা পাঞ্জাব সরকার প্রত্যাহার করেছে।

সূত্রের খবর, ক্যাপ্টেনের সঙ্গে প্রায় ২০ জন উপদেষ্টা রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সিনিয়র উপদেষ্টা টিএস শেরগিল, মিডিয়া উপদেষ্টা রবীণ ঠাকুরাল, ওএসডি মেজর অমরদীপ সিং, অ্যাডভোকেট জেনারেল অতুল নন্দা, ওএসডি দমনজিৎ সিং, ওএসডি মেজর অঙ্কিত বানসাল, রাজনৈতিক সচিব গুরমেহার সিং সেখন প্রমুখ।এদিকে, জানা গিয়েছে, যদি কৃষি আইন নিয়ে গঠনমূলক সমাধান না পাওয়া যায়, তবে অমরিন্দর সিং বিজেপির টিকিটে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন। বা নতুন দলও খুলতেপারেন। কিন্তু রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মত, কৃষি আইন সমাধান ছাড়া বিজেপির টিকিটে লড়লে তিনি পাতিয়ালা বিধানসভা কেন্দ্রেও নির্বাচনে হেরে যাবেন।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ

Categories