Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বাংলার সুখবর, কিন্তু ওরা লুচির মত ফুলবে! কী সংবাদ দিলেন দেবাংশু?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

বাংলার জন্য সুখবর দিলেন দেবাংশু ভট্টাচার্য। তিনি সোশ্যাল মিডিয়া একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। সেই ভিডিওটিতে তিনি বলেন, আপনি যদি পশ্চিমবঙ্গের মানুষ হন আপনার জন্য দারুন সুখবর। পশ্চিমবঙ্গ ভারতবর্ষের মধ্যে মাত্র দুটি রাজ্যের মধ্যে একটি রাজ্য যারা এই মুহূর্তে দুই হাজার কুড়ি ২১ অর্থবর্ষে ভারতকে পজিটিভ জিডিপি দিয়েছে।নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসার পর দেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকে বিকলাঙ্গ করে দিয়েছে।পশ্চিমবঙ্গ এবং তামিলনাড়ু ভারতবর্ষকে পজেটিভ জিডিপি দিয়েছে। এবার আপনারা বলতে পারেন পশ্চিমবঙ্গ কি করে পজেটিভ জিডিপি দিল। মেলা, খেলা আর ভাতা। সিপিএম এবং বিজেপি যারা মেলা, ভাতা নিয়ে বারবার ব্যঙ্গ করেন তারা জানুন এই কারণেই পশ্চিমবঙ্গ জিডিপি দিতে পেরেছে।

অমর্ত্য সেন এবং অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় সব সময় একটা কথা বলেছেন তাঁরা বারবার বলেছেন মানুষের হাতে ক্যাশ পৌঁছে দিতে হবে। সরকারের এই মুহূর্তে উচিত মানুষের হাতে ক্যাশ পৌঁছে দেওয়া। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে মানুষের হাতে ক্যাশ পৌঁছে দিয়েছেন। ফলে মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বেড়েছে। টাকা যে টাকাটা আপনাকে ভাতা দিচ্ছে সেটা নিশ্চয়ই আপনারা জমিয়ে রাখছে না তা দিয়ে জিনিসপত্র কিনছেন। এভাবে পশ্চিমবঙ্গে টাকার রোল হয়েছে বলেই অর্থনৈতিক জায়গাটা পশ্চিমবঙ্গে শক্তিশালী হয়েছে। গ্রামের দিকে বহু জায়গায় মানুষের মেলার উপর নির্ভর করে সংসার চলে।

রাজ্য সরকারের উদ্যোগে বেশ কয়েকটি মেলা হয় পশ্চিমবঙ্গে।মেলা গুলিতে বিভিন্ন মানুষ তাদের হস্তশিল্প বিক্রি করে। অন্যান্য রাজ্যে খেলা হয় না মেলা হয় না। এই রকম ভাতা হয় না।ঐ রাজ্যগুলিতে মাইনাস জিডিপি। পশ্চিমবঙ্গে প্রচুর কারখানা কোম্পানি আসছে।খেলাধ মেলা নিয়ে যারা কটাক্ষ করেন তাদেরকে ভালোভাবে বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানান দেবাংশু ভিডিওটিতে। দেবাংশু বলেন সরকার যেন আরো বেশি করে মেলা খেলা এবং ভাতা দেয়। কারণ এর উপর অর্থনীতির চাকা দাড়িয়ে রয়েছে। আর বিরোধীরা জ্বলতে থাকুক। একজন কমেন্টে লিখেছেন বাহ খুবই ভালো খুব ভালো খবর। আবার একজন কটাক্ষ করে লিখেছেন খাল সংস্কার করতে বলুন চারিদিকে ডুবে মরেছে।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ

Categories