Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

BJP : অন্তিম লগ্নে নয়া স্ট্র্যাটেজি? ভবানীপুরে আশাবাদী গেরুয়া শিবির

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

উপনির্বাচনের মাত্র দু’দিন আগে একটি মোক্ষম চাল দিল বিজেপি। ভবানীপুরের প্রতিটি বাড়িতে চিঠি দেবে বলে সিদ্ধান্ত নিল তাঁরা। সোমবারই ছিল প্রচারের শেষ দিন। আর প্রচার করা সম্ভব নয়। তাই জনসংযোগ বজায় রাখতেই এই সিদ্ধান্ত। জানা গেছে, ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়ালের সমর্থনে দল মত নির্বিশেষে প্রতিটি বাড়িতে চিঠি দেবে বিজেপি। চিঠিতে মূলত তিনটি বিষয়ের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। এক, ভবানীপুর উপনির্বাচনে সরকার বদল হওয়ার সম্ভাবনা নেই, কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী বদল হতেই পারে। দুই, মুখ্যমন্ত্রী বদল হলে রাজ্য দুর্নীতিমুক্ত হবে। তিন, মুখ্যমন্ত্রী যদি একবার জিতে যান সেক্ষেত্রে তিনি ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যাবেন ফলে দুর্নীতি আরও বাড়বে।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, চিঠিটি প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়ালের পক্ষ থেকেই নাগরিকদের উদ্দেশ্যে পাঠানো হবে। ভবানীপুরে মুখ্যমন্ত্রী প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারাতে মরিয়া গেরুয়া শিবির। একুশের বিধানসভায় শুভেন্দু অধিকারীর কাছে নন্দীগ্রামে হেরে যাওয়ায় মুখ্যমন্ত্রীত্ব বজায় রাখতে আবার ভোটের ময়দানে মমতা। প্রথমেই মমতার বিরুদ্ধে ডাকাবুকো আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়ালকে মনোনীত করে বিজেপি কড়া চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে। তারপর প্রচারে একের পর এক তারকা প্রচারকের আনাগোনা। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা হিসেবে শুভেন্দু অধিকারী প্রায় প্রতিদিনই মাইক হাতে কড়া ভাষায় রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করছেন। অন্যদিকে, রাজ্য সভাপতি পদে বদল আসায় নবাগত রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারও আপ্রাণ চেষ্টা করছেন।

সঙ্গে আছেন দিলীপ ঘোষও। সব মিলিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চাপে রাখতে কোনো কৌশলই বাদ রাখছে না গেরুয়া শিবির। তৃণমূল অবশ্য বিজেপিকে অধিক গুরুত্ব দিতে নারাজ। তাঁদের মতে, ভবানীপুরের ঘরের মেয়ে নিশ্চিত জয়লাভ করবেন। একুশের বিধানসভাতেও ভবানীপুরে জয়লাভ করে তৃণমূল। তবে, একুশের নির্বাচনের সঙ্গে উপনির্বাচনের পার্থক্য আছে। এবারের নির্বাচন কেবল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ্যমন্ত্রী পদ বজায় রাখতেই হতে চলেছে। এখন, বিজেপি’র নতুন স্ট্র্যাটেজি কতটা সফল হয় এবং শেষ হাসি কে হাসেন তা বোঝা যাবে ৩ অক্টোবর ফল প্রকাশের দিন।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ