Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

শ্লীলতাহানির অভিযোগ, নর্দমা পরিস্কারের নির্দেশ দিয়ে জামিন আদালতের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।


বিহারের মধুবনী জেলার একটি স্থানীয় আদালত মহিলাদের উপর হামলা ও যৌন হয়রানির অভিযোগে অভিযুক্ত এক ব্যক্তিকে জামিনের শর্ত হিসাবে তার বাড়ির সামনের নর্দমা পরিষ্কার ও রক্ষণাবেক্ষণের নির্দেশ দিয়েছে। নিজের ভুল সংশোধনের পাশপাশি অভিযুক্ত ব্যক্তি সমাজসেবা করার অঙ্গীকার করার পরই এই নির্দেশ দেন বিচারপতি। এদই রায়ের পর গত চার মাস (২৪ এপ্রিল) জেলে থাকার পর জামিনে মুক্তি পায় অভিযুক্ত। বিচারক অবিনাশ কুমার তাঁর রায় জানাতে গিয়ে বলেছেন, ‍‘অভিযুক্তকে দশ হাজার টাকা বেল বন্ড জমা দিয়ে জামিন দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে তাকে শর্ত দেওয়া হয়েছে যে, তার বাড়ির সামনের নর্দমা পরিস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বও নিতে হবে।’


অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে শহরের কিছু মহিলার প্রতি অশালীন ব্যবহার ও তাঁদের শারীরিকভাবে হেনস্থার করার জন্য একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিল। মামলায় যোগ করা হয়েছিল ভারতীয় দণ্ডবিধির ধারা ৩৪১ (রংফুল রেস্ট্রেইন্ট), ৩২৩ (ভলান্টারিলি কজিং হার্ট), ৩০৮ (অ্যাটেম্পট টু কমিট কালপেবল হোমিসাইড), ৩২৪ (ভলান্টারিলি কজিং হার্ট বাই ডেনজারাস ওয়েপনস অর মিনস), ৩৫৪ (বি) (অ্যাসল্ট অর ইউজ অব ক্রিমিনাল ফোর্স টু ওম্যান উইথ ইনটেন্ট টু ডিসরোব), ৩৭৯ (থেফ্ট) ৫০৪ (ইনটেনশনাল ইনসাল্ট টু প্রোভোক ব্রিচ অব পিস), ৫০৬ (ক্রিমিনাল ইনটিমিডেশন) ও ৩৪ (কমন ইনটেনশন)।


অন্য সকল সহ-অভিযুক্তকে আগাম জামিন দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে আদালত অভিযুক্ত জামিন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এছাড়াও রায় দেওয়ার সময় আদালত অভিযুক্তের কারাগারে কাটানো সময়, তার স্বচ্ছ ভামবমূর্তি ও তদন্তকারী সংস্থার দায়ের করা অভিযোগপত্র বিবেচনায় নিয়েছে। এপিপির পরামর্শে আবেদনকারীর আইনজীবী সম্মত হয়ে জানিয়েছেন, অভিযুক্ত ব্যক্তি নিজেরর বাড়ির সামনের নর্দমা পরিষ্কার, রক্ষণাবেক্ষণ ও তত্ত্বাবধান করবে।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ

Categories