Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

যতদিন মমতা ব্যানার্জ্জী মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন সন্ত্রাস চলবে, বিস্ফোরক অগ্নিমিত্রা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

আজ বিজেপি রাজ্য দপ্তরে যান মৃত বিজেপি নেতা অভিজিৎ সরকারে মা এবং মানস সাহার পরিবার। তাঁদের নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করা হয়।
সাংবাদিক বৈঠক থেকে বেরিয়ে বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল রাজ্যের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি গুরুতর অভিযোগ তোলেন। তিনি বলেন

যতদিন মমতা ব্যানার্জি মুখ্যমন্ত্রী থাকবে সন্ত্রাস চলবে :

অগ্নিমিত্রা পল বলেন বাংলায় কোনো গণতন্ত্র নেই। ভারতবর্ষের সংবিধানে লেখা রয়েছে আপনি যে কোনো দল করতে পারেন।কিন্তু শাসক দলের সমালোচনা করলেই তাঁকে কেস দেওয়া হবে। আর ভারতীয় জনতা পার্টি করলে মানস সাহার মতো পিটিয়ে মারা হবে। একজন বয়স্ক মানুষ বহুদিনের কার্যকর্তা ২মে কাউন্সেলিং সেন্টার থেকে বেরিয়ে খাবারের ব্যবস্থা করতে যাচ্ছিলেন সেই সময় তৃণমূলের উচ্চ নেতৃত্ব তাঁকে পিটিয়ে মারে আমি তাই অভিযোগ তোলেন অগ্নিমিত্রা পাল। তিনি বলেন মানস সাহার মাথায় তিনটি অপারেশন হয়েছিল কিন্তু তাকে বাঁচানো গেল না। অভিজিৎ সরকার এর মা হাউ হাউ করে কাঁদছিলেন।তিনি বলেন অভিজিতের কি দোষ ছিল অভিজিৎ ভারতীয় জনতা পার্টির কর্মকর্তা ছিল তাই তাকে মারা হয়েছে এমনকি অভিজিৎ যে কুকুরগুলোকে ভালোবাসতো সেই কুকুরগুলোকেও পিটিয়ে মারা হয়েছে এরা তৃণমূলের ক্যাডার। এত সন্ত্রাস সত্বেও মাননীয়া চুপ। ভারতীয় জনতা পার্টি নাকি গিমিক করছে। সিবিআই তদন্ত করছে। অগ্নিমিত্রা বলেন যতদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন ততদিন এই বাংলায় সন্ত্রাস চলবে।

বুদ্ধিজীবীরা চুপ কেন :

অগ্নিমিত্রা পাল বলেন বাংলায় উন্নয়নের রাজনীতি নেই। অজানা জ্বরে শিশুরা মারা যাচ্ছে। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে প্রায় ১০ জন মারা গেলেন। ফিরহাদ হাকিম বলছেন উত্তরাখণ্ডের দোষ। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কেন মারা যাবে শিশুরা এর দায় কার প্রশ্ন তোলেন অগ্নিমিত্রা।তিনি বলেন উত্তরপ্রদেশে যদি কিছু হয় তখন দোকান থেকে মোমবাতি নিয়ে বুদ্ধিজীবীরা দাঁড়িয়ে পড়বেন। তখন সব কিছুর অনুমতি রয়েছে। এখন বুদ্ধিজীবীরা চুপ রয়েছেন কেন।

তৃণমূল কংগ্রেস দল নয় প্রাইভেট কোম্পানি :

তিনি বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন বলে প্রত্যেকদিন সভায় বলছেন সকলকে ভোট দিতে যেতে হবে এক একটা ভোট খুব প্রয়োজন। আসলে তৃণমূল পার্টি একটা প্রাইভেট কোম্পানি কোনো দল নয়। ওই দলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বাদে কারোর কোনো অধিকার নেই। এটা চলতে থাকবে। এটাই বাংলার মানুষ চেয়েছে। পাশাপাশি অগ্নিমিত্রা পল বলেন তবে এবার মুখ্যমন্ত্রী ভয় পেয়েছেন। তাই এই ভাবে ভোট চাইছেন।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ

Categories