Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/prothomk/public_html/wp-content/themes/MESDNEWS/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

মিনি বাজেট পেশ করতে পারেন সীতারামন

।। রাজীব ঘোষ ।।

সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশনে মিনি বাজেট পেশ করতে পারেন মোদি সরকার। লকডাউন এবং করোনা পরিস্থিতির জন্য আর্থিক বছরের অনেকটা সময় কেটে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে গরীব দেশবাসী এবং শিল্প ইউনিট গুলিকে বাঁচানোর জন্য একের পর এক আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করতে হয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকারকে। দেশের মানুষের কথা ভেবে এই বাজেট ঘোষণা করা হয়েছিল।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন নতুন আর্থিক বাজেট পেশ করেছেন। তবে এখনো পর্যন্ত কোন কিছুই কার্যকর করা সম্ভব হয়নি। এক সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে গত বাজেটের অর্থ বরাদ্দ কিংবা প্রকল্প নিয়ে এখন এগোনো যাবে না। প্রায় সব মন্ত্র কোভিড একাউন্ট নাম দিয়ে লকডাউন এর সময় বিভিন্ন খাতে ব্যয় বরাদ্দ করেছে ওই প্যাকেজ এর অন্তর্গত করা হয়েছে সেটিকেও।

করোনা সতর্কতা বজায় রেখে কোন পথে সংসদের অধিবেশন শুরু করা যায় সেই বিষয়ে আলোচনা চলছে। রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছেন। রাজ্যসভা এবং লোকসভার সমস্ত সদস্যদের এই বিষয়ে জানানো হবে বলে ঠিক হয়েছে। আগস্টের শেষ সপ্তাহে সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশনে ডাকা হতে পারে। সেখানেই মিনি বাজেট পেশ করার কথা ভাবা হচ্ছে।

এই তিন মাসে দেশে যে প্রকল্পগুলির অর্থ বরাদ্দ প্রয়োজন সেগুলো যাতে থমকে না থাকে মোদি সরকার সেটা নিশ্চিত করতে চাইছে। সেই কারণেই আগস্ট মাসের শেষ সপ্তাহে বর্ষাকালীন অধিবেশনে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন আগামী 9 মাসের জন্য একটি রূপরেখা তৈরি করবেন বলে জানা গিয়েছে। লোকসভা এবং রাজ্যসভা পৃথক দিনে বসবে। যেদিন লোকসভা বসবে সেদিন রাজ্যসভার অধিবেশনে হবে না।

কোন সভাতেই সবাই যাতে না উপস্থিত থাকে সেটাই নিশ্চিত করতে হবে। সংসদ ভবনের জনসমাগম কমানোই এর উদ্দেশ্য। 6 মাসের মধ্যে একবার অন্তত সংসদের অধিবেশন না ডাকা হলে সেটা সাংবিধানিক সংকট হবে। ফলে আগামী সেপ্টেম্বর মাসের আগে সংসদের অধিবেশন ডাকতে হবে। সংসদের যে এমপিরা উপস্থিত থাকবেন না তারা ভার্চুয়ালি অংশ নেবেন। তবে এক্ষেত্রে বিলের ক্ষেত্রে ভোটাভুটি হলে সদস্যরা কেমনভাবে অংশ নেবেন সেই বিষয়ে আলোচনা চলছে।