Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/prothomk/public_html/wp-content/themes/MESDNEWS/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

ফের কী রাজ‍্যে লকডাউন?চর্চা চলছে

।। রাজীব ঘোষ ।।

উত্তর 24 পরগনা জেলা প্রশাসনের একটি পরিকল্পনার খসড়া নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে। ওই পরিকল্পনায় 14 দিনের জন্য সমস্ত বাজার, গণপরিবহন, ধর্মীয় স্থান বন্ধ রাখার প্রস্তাব রয়েছে। কুড়ি শতাংশ কর্মী নিয়ে অফিস, কারখানা চালানোর কথাও বলা হয়েছে। সব আন্তর্জাতিক উড়ান বন্ধ রাখার প্রস্তাব রয়েছে পরিকল্পনায়। রাজ্যে কোভিড সংক্রমণে প্রথম কলকাতা এবং তারপরে উত্তর 24 পরগনা।

কাজেই ওই দুই এলাকায় কড়াকড়ির প্রয়োজন রয়েছে বলে প্রশাসনিক কর্তাদের একাংশের অভিমত। জানা গিয়েছে কলকাতার বিভিন্ন থানার ওসিদের নিজের এলাকার করোনা হটস্পট চিহ্নিত করতে বলা হয়েছে। উত্তর চব্বিশ পরগনার জেলাশাসক এর সঙ্গে ব্যারাকপুর, বিধান নগরের পুলিশ প্রধান, বারাসাত, বসিরহাট পুলিশ জেলার এসপি এবং জেলা স্বাস্থ্য দফতরের কর্তাদের বৈঠকে আলোচিত পরিকল্পনায় বলা হয়েছে সব বাজারহাট বন্ধ থাকবে।

শুধুমাত্র নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকান খোলা থাকবে সকাল 9 টা থেকে সন্ধ্যা 6 টা পর্যন্ত। অটো, টোটো, বাস পুরোপুরি বন্ধ থাকবে। দশ দিন পরে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে দেখা হবে। তবে কবে থেকে এই পরিকল্পনা কার্যকর করা হবে সেই বিষয়ে কোনো স্পষ্ট উল্লেখ নেই। তবে পরিষেবা বন্ধ করার দুইদিন আগে মাইকে প্রচার করতে হবে। আনলক টু শুরু হয়েছে।

রাজ্যজুড়ে করোনা সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। সেই কারণে কলকাতা বারাসাত সহ একাধিক এলাকায় ফের লকডাউনে কড়াকড়ি হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। নবান্ন সূত্রে খবর কলকাতার মোট 19 টি রাস্তাকে পুরনো কনটেইনমেন্ট জোনের আকারে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। শহরে সংক্রমনের হার বৃদ্ধির নেপথ্যে যে একশ্রেণীর গৃহস্থের চরম উদাসীনতা ও উন্নাসিকতা দায়ী এই তথ্য জানিয়েছেন কলকাতার মুখ্য প্রশাসক ও পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

সেই কারণেই হয়তো লকডাউন কড়া করতে হতে পারে। বারাসাত ও কড়া লকডাউন এর পথে হাঁটতে চলেছে। আনলক ওয়ান শুরু হতেই রাস্তার মোড়ে চায়ের দোকানে আড্ডা বসতে শুরু করেছে। তাই মঙ্গলবার থেকে চা পান বিড়ি সিগারেট সহ সব দোকান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হতে পারে। রাজ্যে করোনা ভাইরাসের দ্রুত ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানা যাচ্ছে।