Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/prothomk/public_html/wp-content/themes/MESDNEWS/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

কর্মসংস্থানের নিরিখে ভালো অবস্থায় বাংলা,খুশী মমতা

রাজীব ঘোষ ; রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে বেকারত্বের হার মাত্র 6.5 শতাংশ। যেখানে সারা দেশে বেকারত্বের হার 11 শতাংশ। এই পরিসংখ্যান দিয়েছে সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি বা সি এম আই ই। ফলে অনেকটাই ভাল অবস্থায় রয়েছে রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেস সরকার। সার্বিক কর্মসংস্থানের নিরিখে অনেকটাই ব্যাকফুটে মোদি সরকার।

এই বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন একমাত্র রাজ্য সরকারের নীতির জন্য এইটা সম্ভব হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে একাধিক সংস্কারমূলক নীতি নেওয়ার জন্যই কর্মসংস্থানের পথ তৈরি করে দিয়েছে। করোনা পরিস্থিতি থেকে ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী পরিস্থিতি সবকিছু মোকাবিলা করার সরকারের নীতি সাফল্য এনে দিয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতে সারাদেশেই বেকারত্বের হার বেড়েছে। বহু জায়গায় কর্মী ছাঁটাই শুরু করা হলেও পশ্চিমবঙ্গে সেই সংখ্যা অনেক কম। মমতার সরকার পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কাজের বন্দোবস্ত করেছে।

অন্য রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকরা সেখানে না খেতে পেয়ে ফের মহারাষ্ট্র চেন্নাইয়ে ফিরে যেতে চাইছেন। উত্তরপ্রদেশে বেকারত্বের হার 9.6 শতাংশ। হরিয়ানায় বেকারত্বের হার 33.6 শতাংশ। বিজেপি শাসিত এই দুই রাজ্যের থেকে অনেকটাই ভালো অবস্থানে রয়েছে অবিজেপি পশ্চিমবঙ্গ। একুশের ভোটে বিজেপির পক্ষ থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের বড় হাতিয়ার করে তুলতে চলেছিল। সেখানে সি এম আই ইর দেওয়া পরিসংখ্যান তাদের সেই পরিকল্পনায় সমস্যা তৈরি করে দিল বলে মনে করা হচ্ছে।