Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/prothomk/public_html/wp-content/themes/MESDNEWS/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

একনজরে এন্ড্রু কিশোরের জীবনী

।। ফাইজা রাফা, বাংলাদেশ ।।

দীর্ঘ দিন ধরে ক্যান্সারে ভুগছিলেন দেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর। অবশেষে ক্যান্সারের কাছে পরাজিত হয়েছেন তিনি।সোমবার (০৬ জুলাই) সন্ধ্যায় মারা গেছেন এই খ্যাতিমান শিল্পী।এন্ড্রু কিশোরের জন্ম ৪ নভেম্বর ১৯৫৫সালে রাজশাহীতে। তিনি বাংলাদেশ ও অন্যান্য দেশের বহু চলচ্চিত্রের গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। যেজন্য তিনি ‘প্লেব্যাক সম্রাট’ নামে পরিচিত।

তার সবচেয়ে জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে, জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প, হায়রে মানুষ রঙের ফানুস, ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে, আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি, আমার বুকের মধ্যে খানে, আমার বাবার মুখে প্রথম যেদিন শুনেছিলাম গান, ভেঙেছে পিঞ্জর মেলেছে ডানা, সবাই তো ভালোবাসা চায় প্রভৃতি। বাংলা চলচ্চিত্রের গানে অবদানের জন্য তিনি আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।
এন্ড্রু কিশোরের চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক যাত্রা শুরু হয় ১৯৭৭ সালে ।

১৯৭৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত প্রতীজ্ঞা চলচ্চিত্রের ‘এক চোর যায় চলে’ গানে প্রথম দর্শক তার গান শুনে এবং গানটি জনপ্রিয়তা লাভ করে। তিনি অন্যান্য প্লেব্যাক গান রেকর্ড করেন যেমন ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘ভালবেসে গেলাম শুধু’ এর মত জনপ্রিয় সব গান। জীবনে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তিনি। তার গাওয়া গান ঘুরেছে মানুষের মুখে মুখে।বাংলা চলচ্চিত্রের গানে অবদান রাখার জন্য তিনি আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

দীর্ঘ দিন ক্যান্সারে ভুগে অবশেষে ক্যান্সারের কাছে পরাজিত হয়েছেন দেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর। সোমবার (০৬ জুলাই) সন্ধ্যায় মারা গেছেন এই খ্যাতিমান শিল্পী। এর আগে কষ্ট সইতে না পেরে দ্রুত নিজের মৃত্যু কামনা করেছিলেন তিনি।

এম/বি